Train Ticket: ঝক্কিতে ইতি! এবার যে কোন জায়গা থেকেই কাটা যাবে এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট, UTS অ্যাপের এই ব্যবহার জানেন তো?

ভারতবর্ষের প্রাণশক্তি রেল। লোকাল ও দূরপাল্লার ট্রেনে প্রতিদিন সওয়ার করেন লক্ষ লক্ষ মানুষ। নিত্য প্রয়োজনীয় কাজ থেকে দূরবর্তী স্থানে ভ্রমণ, রেল পরিবহন ভারতবর্ষের অন্যতম নির্ভরযোগ্য মাধ্যম। তবে, এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কাটার জন্য আগে ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকতে হত। তার উপর ছিল সময়ের বিধিনিষেধ। তবে এখন থেকে সেই সকল ঝক্কি অতীত। যাত্রীদের রেলের সফরের অভিজ্ঞতা বাড়াতে রেলের তরফে নেওয়া হলো গুরুত্বপূর্ণ পদক্ষেপ। UTS অ্যাপ এর মাধ্যমে এবার যেকোন জায়গা থেকে কেটে নেওয়া যাবে এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট।

এবার থেকে রেল যাত্রীরা বাড়ি থেকে না বেরিয়ে এবং যেকোন স্থানে থেকে এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কেটে নিতে পারবেন। যাত্রীরা আনরিজার্ভড এবং প্ল্যাটফর্ম টিকিট সহজেই কেটে নিতে পারবেন এই অ্যাপের সাহায্যে। সেক্ষেত্রে আগের নিয়মে অনেক বদল আনা হয়েছে। যেমন, অতীতের রেল যাত্রীরা ২০ কিমি ব্যাসার্ধের মধ্যে শহরতলির ট্রেনের জন্য টিকিট কাটতে পারতেন ও নন-সাবরবান ট্রেনের জন্য সীমা ছিল ৫০ কিমি। সেই সীমাবদ্ধতা বর্তমানে কমানো হয়েছে। যার দ্বারা স্মার্টফোন ব্যবহার করে‌ যেকোনো প্রান্ত থেকেই কেটে নেওয়া যাবে টিকিট।

দেশের লাখো মানুষ প্রতিদিন রেলপথে যাতায়াত করেন। তাদের সবার জন্য এই পদক্ষেপ অনেকটা উপকারী হতে চলেছে। তাছাড়া কাউন্টারগুলিতে ভিড় কমাতে ও অনলাইনে যাত্রীদের টিকিট কাটার ক্ষেত্রে উৎসাহিত করা হচ্ছে রেলের তরফে। কলকাতা এবং মুম্বাই শহরে রেলপথে নিত্যযাত্রীর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি। রেলের নতুন পদক্ষেপের দ্বারা তারা সবাই প্রভূত উপকার পেতে চলেছেন। সমীক্ষা বলছে, বর্তমানে প্রায় ২৫ শতাংশ মানুষ অনলাইনে টিকিট কাটতে ইউটিএস (UTS) অ্যাপটি ব্যবহার করেন। তবে সম্প্রতি যে নিয়ম বদল হলো তাতে স্টেশনের আরো কাছাকাছি এসে টিকিট কাটা যাবে। অতীতের জন্য অনেক ভোগান্তি পোহাতে হয়েছে রেল যাত্রীদের। এখন সেসব অতীত। এখন টিকিট কাটা অনেক বেশি সহজ হয়ে গেছে।

আরও পড়ুন – Fuel Price: দারুন সুখবর! এক ধাক্কায় কমতে চলেছে জ্বালানির মূল্য, ব্যাপক সস্তা হতে চলেছে পেট্রোল-ডিজেল

তবে এটাই প্রথম নয় এর আগেও ইউটিএস (UTS) অ্যাপের নানান ধরনের সুবিধা বৃদ্ধি করা হয়েছে। যেমন এখন লোকাল ট্রেনের টিকিট অতি সহজে অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে কেটে নেওয়া যায়। UTS দিয়ে টিকিট কাটার জন্য দুভাবে অপশন পাওয়া যায়। কাগজের মুদ্রিত টিকিটের বদলে বর্তমানে কাগজ বিহীন টিকিট অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য হচ্ছে। কোন লাইন দেওয়া ছাড়া নির্ঝঞ্ঝাটে টিকিট কেটে নিতে পারছেন আমজনতা। ডেইলি টিকিট ছাড়াও মান্থলি টিকিটও বর্তমানে কাটা যায়। বহু মানুষ ডিজিটাল মাধ্যমে টিকিট কাটা অনেক বেশি সুবিধা জনক মনে করছেন।

Leave a Comment