Cash Transaction: ক্যাশ তুলতে আর বারবার ছুটতে হবে না ATM, বাড়ি বসেই পেয়ে যাবেন টাকা, শুধু সেরে ফেলুন এই কাজ

Cash Transaction: বর্তমানে প্রায় সব চাকরিতেই স্যালারি পাঠানো হয় সরাসরি ব্যাংক অ্যাকাউন্টে। এছাড়া ব্যবসার টাকা প্রকল্পের টাকা, স্কলারশিপের টাকা সবই জমা পড়ে ব্যাংক অ্যাকাউন্টে। বারবার করে ব্যাংকে গিয়ে টাকা তোলা নেহাত ঝক্কি ছাড়া কিছু নয়। না হলে ছুটতে হয় এটিএম (ATM)। কিন্তু সেটাও সময় সাপেক্ষ ব্যাপার। অনেক সময়েই এটিএম এর লম্বা লাইন টাকা তোলার ক্ষেত্রে অনেকটাই দেরি করে দেয়। বিশেষ করে মাসের শুরুতেই এই সমস্যাটা হয়। এদিকে যেহেতু টাকা তোলার ভরসাযোগ্য মাধ্যম এটিএম তাই বাধ্য হয়েই ঝক্কি পোহাতে হয় আমজনতাকে। কিন্তু জানেন কি, এমন একটা ব্যবস্থা আছে যার মাধ্যমে আপনি বাড়ি বসে পেয়ে যেতে পারবেন নগদ অর্থ। ভাবছেন কিভাবে? চলুন জেনে নেওয়া যাক।

বর্তমানে এমন একটি ব্যবস্থা চালু রয়েছে যার দ্বারা ক্যাশ তোলার জন্য এটিএম মুখী না হয়ে বাড়িতে বসেই হাতে নগদ অর্থ পাওয়া যায়। ব্যবস্থাটির নাম আধার এটিএম পরিষেবা বা আধার সক্ষম এটিএম পরিষেবা (AePS)। এই বিশেষ ব্যবস্থার মাধ্যমে ক্যাশ তোলার ঝামেলা থেকে রেহাই পাবেন আপনি। ‌ঘরে বসেই তুলে নিতে পারবেন ক্যাশ।পোস্ট অফিসের পোস্টম্যান আপনার বাড়িতে এসে নগদ অর্থ পৌঁছে দিয়ে যাবে। কিন্তু তার আগে আপনাকে জেনে নিতে হবে এই পরিষেবাটি ঠিক কি রকম। কিভাবে এই পরিষেবার মাধ্যমে আপনি সাহায্য পেতে পারবেন।

আধার এটিএম পরিষেবা বা AePS

AePS পরিষেবার পুরো নাম Aadhaar Enabled Payment Service. এই পরিষেবায় ইন্ডিয়া পোস্ট পেমেন্ট ব্যাংকের সুবিধা ব্যবহার করে আপনি ব্যাঙ্ক অথবা এটিএমে না গিয়ে হাতে হাতে ক্যাশ পেয়ে যাবেন। তবে এই পরিষেবার সুবিধা পেতে হলে গ্রাহককে তাঁর ব্যাংক অ্যাকাউন্ট আধার কার্ডের সঙ্গে লিংক করাতে হবে। এই ব্যবস্থাটি এমন একটি পেমেন্ট সিস্টেম যেখানে আধার লিঙ্ক যুক্ত ব্যাংক অ্যাকাউন্টের মাধ্যমে ক্যাশ তোলা সম্ভব হয়। ‌এই পরিষেবার শুধুমাত্র গ্রাহকের বায়োমেট্রিক্স ব্যবহার করে ক্যাশ তোলা, ব্যালেন্স চেক, আধার থেকে আধার ফান্ড ট্রান্সফার, মিনি স্টেটমেন্ট ইত্যাদি কাজগুলি করা সম্ভব হয়।

আরও পড়ুন » কন্যা সন্তানের ভবিষ্যত সুরক্ষায় কেন্দ্রীয় সরকারের দুর্দান্ত স্কিম! সন্তানের জন্মের পর বিনিয়োগ করুন আর রিটার্ন পান ৭০ লাখ টাকা

আধার কার্ডের সঙ্গে একাধিক অ্যাকাউন্টে যুক্ত থাকলে কি হবে?

যদি আপনার আধারের সঙ্গে একাধিক একাউন্ট যুক্ত থাকে অথবা লিংক করা থাকে , তাহলে যখন আপনি লেনদেন করবেন তখন একটি অ্যাকাউন্ট কে বেছে নিতে হবে। আবার অনেক সময় এমনও দেখা যায় অনেকের একই সময় একই ব্যাংকে একের বেশি অ্যাকাউন্ট থাকে। সেক্ষেত্রে আপনি  যেটা করতে পারবেন, আপনি সেই অ্যাকাউন্টটি থেকে টাকা তুলতে পারবেন যেটা আপনার প্রাইমারি অ্যাকাউন্ট এবং পরিষেবাতে সেটা স্থির হয়ে থাকবে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই। মোট কথা এই পরিষেবায় আপনি যথেষ্ট লাভবান হবেন এবং পরিষেবার সুবিধা পেয়ে ঘরে বসেই হাতে হাতে ক্যাশ টাকা তুলে দিতে পারবেন।

Leave a Comment