Spam Call Alert: আপনার ফোনেও এসেছে এইসব নম্বর থেকে কল? ভুলেও ধরবেন না! সতর্ক করল টেলিকম দপ্তর

Spam Call Alert: সাইবার প্রতারণার ফলে তটস্থ সারা দেশের মানুষ। নিত্যনতুন ফন্দি এঁটে গ্রাহকদের বিপদে ফেলছে সাইবার প্রতারকেরা। বর্তমানে হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন না এমন মানুষ হাতে গুনে পাওয়া যায় না। প্রতারকদের টার্গেট এবার হোয়াটসঅ্যাপ কল। ‌অনেকেই অভিযোগ জানাচ্ছেন যে, ভুয়ো নম্বর থেকে ফোন আসছে তাঁদের হোয়াটসঅ্যাপ-এ। সেই সমস্ত কল না ধরার জন্য সতর্ক করছে টেলিকম দপ্তর। এই বিশেষ নম্বর থেকে কল এলে তা এড়িয়ে চলুন। নয়ত বিপদে পড়তে এক মিনিট সময় লাগবে না।

১) হোয়াটসঅ্যাপের ভুয়ো কলে কী বলা হচ্ছে?

লিংক এর মাধ্যমে সাইবার প্রতারকেরা যে জাল পেতেছে, সে জাল ক্রমে এড়িয়ে চলছে সাধারণ মানুষ। কারণ ভো লিংকে ক্লিক করলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট‌ যে খালি হয়ে যেতে পারে, তা বুঝে গিয়েছেন আমজনতা। আর সেই কারণে লিংকে ক্লিক না করে এই সকল ভুয়ো মেসেজ এড়িয়ে চলছেন তাঁরা। তাই এবার অন্যরকম ফন্দি এঁটেছে‌ সাইবার প্রতারকেরা। হোয়াটসঅ্যাপে আসছে অজানা কল। সেই কল ধরলে বলা হচ্ছে, দ্রুত নির্দিষ্ট কাজ না করলে বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে গ্রাহকের মোবাইল কানেকশন। কি কাজ? স্মার্টফোন ব্যবহারকারীদের হুমকি দেওয়া হচ্ছে যে, আপনার নম্বরের অপব্যবহার হচ্ছে। তা রুখতে হোয়াটসঅ্যাপে পাঠানো লিংকে ক্লিক করুন।

২) টেলিকম দপ্তর কী সাবধানতা অবলম্বন করতে বলছে?

টেলিকম দপ্তর নাগরিকদের সাবধান করছেন এই সকল ভুয়ো কল এড়িয়ে চলতে। কিন্তু কিভাবে বোঝা যাবে যে কলটি ভুয়ো? টেলিকম দপ্তর সূত্রে খবর, এই ধরনের অজানা কল আসছে সাধারণত বিদেশ থেকে। নম্বরটি শুরু হচ্ছে +৯২ ডিজিট দিয়ে যা মোটেই ভারতীয় নম্বর নয়। সাধারণ মানুষের ব্যক্তিগত তথ্য গোপনে হাতিয়ে নিচ্ছে সাইবার অপরাধীরা। টেলিকম দপ্তরের তরফে সাবধান করা হচ্ছে সমস্ত হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদের।

আরও পড়ুন » স্টেট ব্যাঙ্কের সবচেয়ে লাভজনক ফিক্সড ডিপোজিট স্কিম! ৪০০ দিনের ডিপোজিটে মিলবে দেদার রিটার্ন

৩)‌ এই ধরনের ভুয়ো কল পেলে কী করবেন?

এখন লাখ লাখ হোয়াটসঅ্যাপ ইউজারদের প্রশ্ন হল এই ধরনের ভুয়ো কল পেলে কী করা উচিত? এই বিষয়ে টেলিকম দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছে, আপনি যদি এই ধরনের ফ্রড কলের শিকার হন, তাহলে কেন্দ্রের সঞ্চার সাথী পোর্টাল এর অধীনে Chakshu রিপোর্ট সাসপেক্ট ফ্রড কমিউনিকেশনে রিপোর্ট জানান। সন্দেহজনক কিছু মনে হলেই তৎক্ষণাৎ রিপোর্ট জানান। এই বিষয়ে জনসাধারণকে সচেতন হতে নির্দেশ দিচ্ছে টেলিকম দপ্তর।

এছাড়াও সাইবার ক্রাইম হেল্পলাইন নম্বর ১৯২০-তে যোগাযোগ করেও ফ্রড কলের রিপোর্ট করতে পারেন।

Leave a Comment