Sovereign Gold Bond: দারুন খবর! এবার কেন্দ্র বেচছে বাজারের চেয়ে অনেক সস্তায় সোনা! শীঘ্রই কিনুন

সোনার প্রতি আকর্ষণ সব মানুষেরই। বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতীয়দের মধ্যে সোনার প্রতি আকর্ষণ খানিক বেশি। সোনার এমন ব্যাপক চাহিদা থাকার কারণেই ভারতীয় বাজারে সোনার দাম অনেক বেশি হয়ে থাকে। এহেন পরিস্থিতিতে, কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে একটি নয়া স্কিম আনা হয়েছে, যার নাম Sovereign Gold Bond। এই স্কিমের মাধ্যমে বাজারের থেকে অনেক সস্তায় বিক্রি করা হয় সোনা।

বিনিয়োগ করার মেয়াদ কতদিন?

কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে জারি হওয়া এই স্কিমের আওতায় সোনা কেনার জন্য হাতে অবশ্য খুব কম সময় পাওয়া যায়। এই স্কিমের আওতায় কেন্দ্র ১২ই ফেব্রুয়ারি থেকে ১৬ই ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত সস্তায় সোনা বিক্রি করবে। আরবিআই অর্থাৎ রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া দ্বারা চালু করা এই নয়া স্কিমে সোনায় বিনিয়োগ করার জন্য আপনি সুযোগ পাবেন, যার মেয়াদ ৪ বছর। এই সোনার দাম বাজারের তুলনায়  অনেক কম।

কত সস্তায় মিলবে সোনা?

বাজারের চেয়ে অনেক দামে এখন থেকে সোনা কিনা আপনি তা বিনিয়োগের জন্য রাখতে পারেন। এই প্রকল্পের জন্য ইতিমধ্যেই সোনার দাম নির্ধারণ করা হয়েছে। এবার প্রতি গ্রাম সোনার দাম ধার্য করা হয়েছে ৬২৬৩ টাকা। এই দামে ২৪ ক্যারেট মানের সোনা পাওয়া যাবে। গত রবিবার কলকাতায় ১০ গ্রাম ২৪ ক্যারেট সোনার দাম ছিল ৬৪ হাজার ৩৯৫ টাকা, অর্থাৎ এক গ্রাম সোনার দাম হয় ৬৪৩৯.৫০ টাকা। আর বাজারের থেকে ২০০ টাকা কমে পাওয়া যাচ্ছে এক গ্রাম সোনা।

কত পরিমাণ সোনা কিনতে পারবেন?

যদি কোনো বিনিয়োগকারী অনলাইনে বিনিয়োগ করেন, তবে প্রতি গ্রামে ৫০ টাকা করে ছাড় দেওয়া হয়। এই বন্ডের উপর ২.৫০ শতাংশ সুদ দেওয়া হয়, যা বছরে দুবার অ্যাকাউন্টে জমা হয়। আবার আপনি প্রয়োজন হলে গোল্ড বন্ড থেকে লোনও নিতে পারেন। লোন নেওয়ার ক্ষেত্রে খুব বেশি সুদ দিতে হয় না। এই প্রকল্পের আওতায় একজন ব্যক্তি ৪ কেজি এবং কোনো ট্রাস্ট কিংবা সংস্থা ২০ কেজি পর্যন্ত সোনা কিনতে পারবেন।

কীভাবে সোনা কিনবেন?

Sovereign Gold Bond এর মাধ্যমে বিনিয়োগকারীরা স্মল ফাইন্যান্স ব্যাঙ্ক, পেমেন্ট ব্যাঙ্ক, আঞ্চলিক গ্রামীণ ব্যাঙ্ক, স্টক হোল্ডিং কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া, ক্লিয়ারিং কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া, পোস্ট অফিস, ন্যাশনাল ব্যাঙ্ক, স্টক এক্সচেঞ্জের মাধ্যমে সোনা করতে পারেন।

কে এই সোনা কিনতে পারে?

কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্ক ভারত সরকারের তরফ থেকে জারি করা এই স্কিমে শুধুমাত্র ভারতীয় বাসিন্দা, হিন্দু অবিভক্ত পরিবার, ট্রাস্ট, বিশ্ববিদ্যালয় এবং দাতব্য প্রতিষ্ঠান এই প্রকল্পে বিনিয়োগ করতে পারেন।

কত রিটার্ন পেতে পারেন?

Sovereign Gold Bond এর প্রথম সিরিজটি ২০১৫ সালে শুরু হয়েছিল, যার মেয়াদ শেষ হয়েছিল ২০২৩ সালে। সেই সময়ের মধ্যে এই স্কিম থেকে ১২৯ শতাংশ বার্ষিক রিটার্ন পাওয়া গেছিল, অর্থাৎ আট বছরে মানুষের টাকা একলাফে দ্বিগুণ হয়েছিল। এই তুলনায় গত ২০ বছরে সোনার গড় রিটার্ন হয়েছে ১১.২ শতাংশ।

এই ধরনের আরও আপডেট পেতে আমাদের ওয়েবসাইট WB Help ফলো করুন।

আরও পড়ুন » ক্রেডিট কার্ডে দুর্দান্ত অফার, অনলাইন কেনাকাটায় মিলবে অতিরিক্ত রিওয়ার্ড। নতুন নিয়মগুলি এক নজরে দেখে নিন

Leave a Comment